• সার্চ
  • সার্চ
৭টি জীবন রক্ষাকারী ভ্রমণ হ্যাক টিপস - GoArif

৭টি জীবন রক্ষাকারী ভ্রমণ হ্যাক টিপস

আপনার পরবর্তী ভ্রমণের জন্য ৭টি জীবন রক্ষাকারী ভ্রমণ হ্যাক টিপস অবশ্যই জেনে রাখা প্রয়োজন। এই জীবন রক্ষাকারী টিপস গুলো আপনার ভ্রমণ এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

কিছু ভ্রমণ কৌশল আপনার ট্রিপ / ভ্রমণ কে আরও ভালো করতে সহায়তা করবে। GoArif এ প্রকাশ করা বেশকিছু টিপস রয়েছে যে গুলো আপনাকে ভ্রমণে টাকা বাচাতে সহায়তা করবে।

ভ্রমণে টাকা বাঁচানোর কিছু দুর্দান্ত উপায় গুলো জানেন কি?

কিন্তু এই ভ্রমণ হ্যাকগুলো আপনাকে বিপদ থেকে রক্ষা করবে এমন কি আপনার জীবন বাচাতে পারে। তাই খুব মনোযোগ সহকারে পোস্টটি পড়ার চেষ্টা করবেন।

জীবন রক্ষাকারী ভ্রমণ হ্যাক


নিচে দেয়া জীবন রক্ষাকারী ভ্রমণ হ্যাক টিপস গুলো আপনাকে ঝুঁকি এড়ানোর বা বিপদ স্থান থেকে পালাতে সাহায্য করতে পারে।

চলুন শুরু করা যাক…

আপনার ফোনে গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য তথ্য প্রদর্শন করে রাখুন

অনেকের নানা বিষয়ে এলার্জি রয়েছে যেমনঃ পানি দেখলে খিঁচুনি উঠে, কুকুর দেখলে খিঁচুনি উঠে; অথবা যদি আপনার অন্যকোন এমন রোগ থাকে যেটা যে কোন সময় আপনাকে আক্রান্ত করতে পারে।

ভ্রমণে গিয়ে যদি আপনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন বিশেষ করে একাকী ভ্রমণে (Solo Traveling) গিয়ে এবং আপনার যদি আমন অবস্থা হয় যে আপনি ডাক্তারের কাছে পর্যন্ত যেতে না পারেন বা আপনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন তখন এই টিপস টি আপনার অনেক কাজে দিবে…। টিপস হলঃ

কিছু স্মার্টফোনের অ্যাপ্লিকেশন আপনাকে আপনার লক স্ক্রীনে সঠিক স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য (যেটা আপনি আপনার ফোনে আগেই সেট করে রেখেছেন) যেমন মারাত্মক এলার্জি বা চিকিৎসা শর্তাদি প্রদর্শন করতে দেয় যাতে ডাক্তার এবং প্রথম প্রতিক্রিয়াগুলি আপনার পাসওয়ার্ড বা আঙ্গুলের ছাপ ছাড়াও তাদের দেখতে পারে।

তখন আপনি অজ্ঞান অবস্থায় থাকলেও কেউ যদি আপনাকে ডাক্তারে কাছে নিয়ে যায় তাহলে ডাক্তার খুব সহজেই আপনার রোগটি চিহ্নিত করে চিকিৎসা দিতে পারবে।

এরকম একটি এপস হচ্ছেঃ Medical ID

এই এপসটি আপনি আপনার অ্যান্ড্রয়েড (Android) মোবাইল এবং আইফোন (Iphone) এর জন্য ফ্রিতে পাবেন।

অ্যান্ড্রয়েড এর জন্য গুগল প্লে স্টোর এবং আইফোন এর জন্য এপস স্টোরে গিয়ে “Medical ID” লিখে সার্চ দিলেই পেয়ে যাবেন।

জুতার মোজায় কিছু টাকা রাখুন

জীবন রক্ষাকারী ভ্রমণ হ্যাক টিপস এ দ্বিতীয় টিপস হলঃ জুতার মোজায় কিছু অতিরিক্ত টাকা রাখুন! এটা অনেকের কাছে হাস্যকর মনে হলেও এটা একজন বিপদগ্রস্থ ভ্রমণ কারীর জন্য অনেক কাজের।

আমি কোথাও ভ্রমণে গেলে প্রথমে আমার ভ্রমণ খরচের মোট টাকা কে ৩/২ ভাগে ভাগ করে নেই। এক ভাগ মানিব্যাগে, ২য় ভাগ ট্রাভেল ব্যাগে এবং ৩য় ভাগ আমার জুতার মোজায় রাখি।

এর ফলে ভ্রমণে কখনও যদি মানিব্যাগ ছিনতাই কিংবা হারিয়ে যায় তাহলে বাকি ২ ভাগ টাকা দিয়ে ভ্রমণ শেষ করি। যদি, মানিব্যাগ এবং ব্যাগ হারিয়ে বা ছিনতাই হয়ে যায় তাহলে বাকি একভাগ টাকা দিয়ে নিরাপদে বাসায় ফিরে আসি। কারন ভ্রমণে বিপদ বলে কয়ে আসবে না।

সবসময় সতর্ক থাকা ভালো। না হলে আপনি কিসেন স্মার্ট ট্রাভেলার! ইটস এ জোক…!!

অনেকে বলতে পারেন আমিতো ভাই আপনার থেকেও বেশি স্মার্ট! কারন আমার কাছে ATM কার্ড আছে, সাথে আছে বিকাশ, রকেট ইত্যাদি।

এগুলো হয়তো একটা সময়ে কাজে লাগবে কিন্তু যেখান থেকে ছিনতাইকারি আপনার সব নিয়ে যাবে সেখানে ATM মেশিন, বিকাশ, রকেট ইত্যাদি নাও থাকতে পারে।

আপনার মূল্যবান জিনিস গুলো ভাগ করে নিন

আপনি যদি কোনও বন্ধুর সাথে ভ্রমণ করেন তবে পাসপোর্ট, ক্রেডিট কার্ড, নগদ অর্থ এবং হোটেল কীগুলির মতো সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ জিনিস গুলো একজন এর কাছে না রেখে আলাদা আলাদা করে ভাগ করে ২জন এর কাছে রাখুন।

এতে একজনের কাছ থেকে সবকিছু হারিয়ে বা ছিনতাই হয়ে গেলেও বাকি জিনিস গুলো দিয়ে কাজ চালাতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ ভ্রমণে নিরাপত্তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ১০টি টিপস

জরুরী নম্বর গুলো সংরক্ষণ করুন

ভ্রমণে জরুরী নম্বর গুলো সংরক্ষণ করুন এখনি! ভ্রমণে জরুরী নাম্বার রাখার ২টি টিপস বলব এখানেঃ

১। আপনি আপনার পরিবার বা প্রিয়জনের অথবা বন্ধুর নাম্বা মুখস্ত করে নিন। ভ্রমণে যাওয়ার আগে তাকে অবহিত করে রাখুনঃ আপনি কোথায় ভ্রমণে যাচ্ছেন। তার নাম্বারটি মোবাইলে কন্ট্রাক্ট লিস্টে প্রথমে রাখুন।

বর্তমানে সবার হাতেই স্মার্ট ফোন রয়েছে। স্মার্ট ফোনের নতুন দুটি ফিচার হচ্ছেঃ ইমারজেন্সি কল (Emergency Call) এবং জরুরী এসওএস (Emergency SOS)।

এই ফিচার দুটি ব্যাবহারের জন্য আপনাকে আগেই আপনার কারো নাম্বার এড করে দিতে হবে। যখনি আপনি কোন বিপদে পরবেন তখন মোবাইলের বিশেষ একটি বাটন চাপার মাধ্যমে আপনার বিপদ এর কথা আপনার লোকেশন সহ তার কাছে পৌছে যাবে।

২। ২য় টিপস টি একটু এনালগ তবে এটাও বিপদে খুব কাজে দিবে। একটা কাগজে আপনার ইমারজেন্সি নাম্বার গুলো লিখে আপনার মানিব্যাগ, ট্রাভেল ব্যাগ, কাঁধের ব্যাগ এবং আপনার শার্ট বা প্যান্ট এর পকেটে রেখে দিন।

যদি ভ্রমণে এমন কোন বিপদ হয় যে আপনি অজ্ঞান অবস্থায় থাকেন তাহলে, যে কেউ নাম্বার নিয়ে আপনার ইমারজেন্সি / প্রিয়জনকে কল দিয়ে জানাতে পারবে।

আপনার ভ্রমণ নিরাপত্তার জন্য: ভ্রমণে বিভিন্ন দেশের জরুরী নাম্বার গুলো জানেন তো?

তৃতীয় এবং ছয় তলার মধ্যে থাকুন

আপনি সম্ভবত আপনার হোটেলের রুম কয় তলায় নিবেন কোথায় থাকবেন ইত্যাদি বিষয় নিয়ে খুব একটা চিন্তা করেন না, কিন্তু আপনি আপনার নিরাপত্তা মনে রাখা উচিত।

হোটেল সেফটি টিপস এর জন্য স্যার শ্লিচটার লিখেছেন, “যদি সম্ভব হয় গ্রাউন্ড ফ্লোরে রুম বুক করবেন না” “অনেক নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা তৃতীয় এবং ষষ্ঠ তলার মধ্যে কোথাও থাকার সুপারিশ করেন। যেখানে ভূমিকম্প হলে কক্ষগুলি ভেঙ্গে পড়ার জন্য যথেষ্ট কঠিন, কিন্তু আবার এত বেশি নয় যে তারা আগুন নিবারন করতে সক্ষম।

ড্রিংকস বা পানীয় পান করার সময় সতর্ক থাকুন

ভ্রমণে গেলে যতটা সম্ভব এলকোহল পরিহার করুণ। বিশেষ করে একা ভ্রমণে গেলে এটা বেশি জরুরী। আপনি হয়তো কোন বিদেশি বারে মনের সুখে মদ পান করছেন, এদিকে আপনাকে টার্গেট করে রাখা আরেকজন আপনার ট্রাভেল ব্যাগ নিয়ে উধাও।

ম্যাপিং অ্যাপ্লিকেশনে আপনার ট্যাক্সি কে অনুসরণ করুণ

বর্তমানে বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অনেক দেশে উবার (Uber) এর মাধ্যমে ট্যাক্সি ভাড়া করা যায়। বাংলাদেশে উবার সহ পাঠাও এই সার্ভিস দিয়ে থাকে।

ট্যাক্সি ভাড়া করার পর আপনার মোবাইলে লক্ষ্য রাখুন যে ট্যাক্সি সঠিক ম্যাপ দিয়ে যাচ্ছে কিনা। কারন, এরা অনেক সময় ভুল জায়গায় নিয়ে আপনার ভাড়া বাড়িয়ে দিতে পারে এমন কি আপনাকে হাইজ্যাক পর্যন্ত করতে পারে।

অন্যান্য যানবাহনে ভ্রমণের সময় গুগল ম্যাপ অনুসরন করতে পারেন।

স্মার্ট ভ্রমণ কারীদের জন্য আরওঃ


আমার ফেসবুকঃ GoArif

ট্রিপডো ব্লগ এর কোথাও কোন ভুল বা অসংগতি আপনার দৃষ্টিগোচর হলে তা অনুগ্রহ করে আমাদের অবহিত করুন, যেন আমরা দ্রুত সংশোধন করতে পারি।
আরিফ হোসেন

আমি একজন ভ্রমণ পিপাসু। ভ্রমণ করতে আমার খুবই ভালো লাগে। তাইতো সময় পেলে ভ্রমণে ছুটে যাই। কোন ভ্রমণই আমার শেষ হয়ে শেষ হয় না। বারংবার আমার সেই স্থানে ছুটে যেতে ইচ্ছে করে। কারন, আমি যে প্রকৃতি ভালবাসি।

সব পোস্ট দেখুন

মন্তব্য করুণ

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।